Welcome to Kholifa Advertising Network
to grow up your Online Business

Facebook Ads

ফেইসবুক এ্যাডের ব্যাপারে আমাদের কাছে জানতে চাওয়া সম্ভাব্য প্রশ্ন, এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর এখানে দেয়ার চেষ্টা করেছি। আপনার প্রশ্নটি এখানে না থাকলে বা উত্তরটি অস্পষ্ট মনে হলে নির্দিধায় ফোন করুন: 01610402061

 

ফেইসবুক এ্যাড কি?

ফেইসবুক ব্যাবহারের সময় ডেক্সটপ এর ডান পাশে মোবাইলে স্ক্রল করলে কিছু বিজ্ঞাপন দেখা যায়, যেগুলোর সাথে sponsored লেখা থাকে সেগুলোই হচ্ছে ফেসবুক এ্যাড বা ফেসবুক প্রমোশন।

 

ফেইসবুক এর যেকোন পেইজ এর মাধ্যমে এ্যাড বা বুস্ট করা যায়। এ্যাডের উপরের ডান কোনায় আপনার পেইজ এর প্রোফাইল পিকচার, তার ডান পাশে পেইজের নাম, ঠিক তার নীচে ট্যাগলাইন/স্লোগান বা এ্যাডের কথা রয়েছে এবং তার পরে এ্যাডের ইমেজ থাকে যার নীচে ডান দিকে লাইক বাটন রয়েছে, পেইজটিতে লাইক দেয়ার জন্য, আর পোস্ট / এর লাইক, কমেন্ট শেয়ার তো থাকছেই। ফেইসবুকে এ্যাড অফিসিয়াল গাইডলাইনঃ অফিসিয়াল গাইড

 

ফেইসবুকে এ্যাড দিতে সর্বনিন্ম কত টাকা / ডলার লাগে?

ফেইসবুকের সর্বনিন্ম বাজেট দৈনিক USD $1 ডলার। আমাদের ডলার রেট $1 = ১২০/- এবং ১১০/- **টাকা করে। এক্ষেত্রে আমরা দুইটি ক্যাটাগরিতে এ্যাড দিয়ে থাকি।
(১) পরীক্ষামুলক এবং (২) সাধারন।

পরীক্ষামুলক:- আপনি নতুন বা পরীক্ষামুলক এ্যাড দিতে চাইলে মিনিমাম USD $5 ডলার দিয়ে শুরু করতে পারেন, আমরা $5 ডলার খরচ করে ৩দিন / ৫দিনের একটি এ্যাড চালাব (আপনার সুবিধা/প্রয়োজন অনুযায়ী), এরপর আপনি চাইলে সাধারন ক্যাটাগরির এ্যাড দিতে পারবেন।

সাধারন: সাধারন ক্যাটাগরি তে এ্যাড দিতে চাইলে মিনিমাম USD $50 ডলার দিয়ে এ্যাড দিতে হবে এক্ষেত্রে , ডলার রেট $1 = ১২০/-** টাকা করে। এবং পরবর্তিতে USD $100 ডলার এর বেশি এ্যাড দিতে চাইলে তখন ডলার রেট $1 = ১১০/-** টাকা করে হবে। ​

**বিকাশ/রকেট (মোবাইল ব্যাংকিং) চার্জ দিতে হবে।

বাজেটের অনুপাতে এ্যাডের ফলাফল হয়ে থাকে। দৈনিক ৫ ডলার খরচ করলে যতগুলো ক্লিক পড়বে (বা যতবার দেখানো হবে) ৫০ ডলার খরচ করলে ফলাফল তার দশগুন বেশী হবে।

ফেইসবুকে তো যেকেউ নিজেই এ্যাড দিতে পারে। তাহলে কোন আপনাদের মাধ্যমে এ্যাড দিতে হবে?

মনে রাখবেন এ্যাড মানে শুধু ডলার খরচ নয়; এটি সৃজনশীলতা, অভিজ্ঞতা ও আরো কিছু জিনিসের সমন্বয়। টেকনিক্যালি আপনার একটি পেমেন্ট ম্যাথড হলেই এ্যাড দিতে পারবেন। ফেইসবুক সব একাউন্টের সাথেই এ্যাড তৈরী ও পাবলিশ করার ব্যাবস্থা করে দিয়েছে, অনেকে তা ব্যাবহার করে ক্যাম্পেইন চালাচ্ছে। কিন্তু তবুও তিনটি কারনে এজেন্সির সাহায্য আপনার প্রযোজন হবে:-

১) অভিজ্ঞতা: পেশাদার আর অনভিজ্ঞ কাজের পার্থক্য অনেক। এজেন্সি অনেক ধরনের ব্যাবসার হাজারো এ্যাড দিয়ে আসছে বছরের পর বছর। তারা Facebook community standard, Ad policy, Conversion rate, Bid, Placement, Detailed interest  বিষয়গুলো মাথায় রেখে এ্যাডভার্টাইজিং করে। এজেন্সি হিসেবে আমরা চেষ্টা করি যেন আমাদের প্রতিটি কাস্টমার তার বিনিযোগের সর্বোচ্চ ফল পায়।

২) পেমেন্ট চ্যানেল: ফেইসবুককে পেমেন্ট করার ব্যাবস্থা করাটা অনেক ঝামেলার ব্যাপার। ব্যাংকে অনেক ফরমালিটি। দেশের বাইরের কারো সাহায্য নিয়মিত চাওয়াও অস্বস্তিকর। এ কারনেও অনেকে পুরো ব্যাপারটি এজেন্সির হাতে দিয়ে একটি ওয়ান স্টপ সার্ভিস চায়।

৩) ক্রিয়েটিভ কন্টেন্ট: এজেন্সিগুলো সাধারনত এ্যাডের কন্টেন্ট তৈরী করে দেয়। এ জন্য সাধারনত আলাদা পেমেন্ট নেয়া হয়। কমপক্ষে ৫০ ডলারের এ্যাড হলে আমরা এ্যাডের কন্টেন্ট ফ্রি তৈরী করে দেই।

 

আমার এ্যাডটি কতবার দেখানো হবে?

এটি ফেইসবুকের নিজস্ব কিছু নিয়মে নির্ধারিত হয় (বাজেট, এ্যাড কোয়ালিটি স্কোর, প্রতিদ্বন্দী এ্যাডের পরিমান ও বাজেট ইত্যাদী)। প্রতি ক্লিকের হিসেবে ৫০০০ টাকা বাজেটে মোটামুটি ৭০০-৩০০০ টি ক্লিক হতে পারে। প্রতি ১ হাজারবার দেখানোর হিসেবে আনুমানিক এ্যাডটি ১ থেকে ২ লক্ষবার দেখানো হবে।

 

কিভাবে বুঝব কত টাকা খরচ হলো বা কতজন এ্যডটি দেখল?

প্রতিদিন এ্যাডের রিপোর্টের কপি ই-মেইলে পাঠানো হবে। এ্যাড চলাকালিন সময় লাইভ রিপোর্ট-ও দেখে নিতে পারেন। এছাড়া এ্যাডের শেষে বিন্তারিত রিপোর্ট ইমেইলে পাঠানো হবে। 

 

আমি আপনাদের সার্ভিস যাচাই করার জন্য ১০/২০ ডলারের এ্যাড দিতে চাই। এই টাকার বিনিময়ে আমি কি পাবো?

ফেইসবুকে আপনার নিজস্ব এ্যাড তৈরী, প্রতি ডলারের প্রাইস ১২০/- টাকা করে ১,২০০ / ২,৪০০ টাকা সমপরিমাণ ১০/২০ ডলারের ক্রেডিট এবং পুর্ণাঙ্গ রিপোর্ট।

 

আমি ২০০ ডলারের এ্যাড দিতে চাই। আমি ভাবছি ৩ দিনের জন্য দেব। এখন এই এ্যাড ৩ দিনের জন্য না দিয়ে যদি ১০ দিনের জন্য যদি দেই তাহলে কি কিছু বেশী ক্লিক/লাইক পাব?

পত্রিকার বিজ্ঞাপন যেমন বেশীদিন চালালে বেশী মানুষ দেখবে, ফেইসবুকের বিজ্ঞাপন ঠিক তেমনটি নয়। আপনার বাজেট অনুযায়ী এটি দেখানো হবে। বাজেট ঠিক রেখে দিনের সংখ্যা বাড়িয়ে দিলে, প্রতিদিনের দেখানোর হার কমে আসবে। আপনার ২০০ ডলার ৩ দিনে যদি ২০০০০ ক্লিক এনে দেয় তাহলে ১০ দিনেও ২০০০০ -ক্লিকই এনে দিবে। এ্যাডের সময় বাড়ালে প্রতি দিনের পাফরমেন্স এবং খরচ কম বা বেশী হওয়া ছাড়া অন্য কোন সুবিধা নেই। আপনি মোট যত টাকা খরচ করছেন, সে অনুযায়ী ফলাফল হবে। এ্যাড কম দিন চলুক বা বেশী, মোট ফলাফল একই থাকবে।

ফেইসবুকের এ্যাড দেখানোর ফর্মুলা:
এ্যাড পারফরর্মেন্স = (বাজেট/সময়) X কোয়ালিটি স্কোর অর্থাৎ

বাজেট বাড়ালে পারফরর্মেন্স বাড়বে (সময় ও কোয়ালিটি একই হলে)
সময় বাড়ালে পারফরর্মেন্স কমবে (বাজেট ও কোয়ালিটি একই হলে)
কোয়ালিটি বেড়ে গেলে পারফরর্মেন্স বাড়বে (বাজেট ও সময় একই হলে)

 

২০০০/৩০০০ টাকার এ্যাডে একটা পেইজে আনুমানিক কত জন ফ্যান হতে পারে?

আসলে কতজন ফ্যান হবে সেটা নির্দিষ্টভাবে বলা যায় না। যদি শুধু বাংলাদেশ টার্গেট করা হয়, তাহলে প্রতিটা ক্লিকের জন্য আনুমানিক খরচ হবে 1.5 সেন্ট থেকে 12 সেন্ট পর্যন্ত (Dec 2019 হিসেবে) অর্থাৎ 250 থেকে 2000+ ভিজিটর আপনার পেইজ ঘুরে আসবে। যেসব ভিজিটরের আপনার পেইজ ভালো লাগবে, তারাই লাইক দিয়ে ফ্যান হবে। যার ভালো লাগবে না, সে হয়তো ‘লাইক’ করবে না। তাই এটি কেউই সঠিক করে বলতে পারবে না

 

আপনাদের রেটটা একটু বেশী মনে হচ্ছে / অন্যরা প্রতি ডলার ৯০/১০০ টাকায় অফার করছে / আমি অল্প আয়ের ব্যাবসায়ী / ছাত্র / অনেক দুরে থাকি – আমার জন্য কিছুটা ছাড় দেয়া যাবে?

যতটুটু সম্ভব ছাড় দিয়েই আমাদের রেট নির্ধারিত হয়েছে। আর কোন ডিসকাউন্টের অনুরোধ রাখা আমাদের পক্ষে সম্ভব নয়।

 

আমি ফেইসবুকে এ্যাড দিতে চাই। এখন আমাকে কি করতে হবে?

আপনার প্রতিষ্ঠানের একটি ফেইসবুক পেইজ থাকতে হবে, সর্বোচ্চ ২৫ অক্ষরের টাইটেল ও ৯০ অক্ষরে এ্যাডের বিবরণ দেয়া যায়। এই হিসেব স্পেস সহ। সাথে এ্যাডের ১টি ছবি লাগবে। আমরা কোন বানিজ্যিক প্রতিষ্ঠান নই। এটা একান্তই ব্যাক্তিগত উদ্যোগ। আমাদের সাথে দেখা করতে বা এ্যাড দিতে চাইলে অফিস আওয়ারের বাইরে যোগাযোগ করতে পারেন। এছাড়া আমাদের ফেসবুক পেইজে যোগাযোগ করুন। আপনার ফেইসবুক পেইজের এ্যাড দেয়ার জন্য আমাকে আপনার পেইজের এ্যাডভার্টাইজার করে দিতে হবে। এ্যাডের জন্য লেখা ৯০ ক্যারেক্টার এবং ছবি ১২০০ X ৬২৮ পিক্সেল
(Text: 90 characters, Image Specs: 1200x628px [for website ad]; 1200x444px [for fan page ad]; 600X600px for website multi image scroll ad ) হতে হবে। ফেইসবুকে এ্যাড এর জন্য ছবির মাপ ও লেখার পরিমানের বিস্তারিত তথ্য এই লিঙ্কে পাওয়া যাবে।

 

আমরা আপনার সাথে সামনাসামনি কথা বলতে চাই, আপনি কি আমাদের অফিসে আসতে পারবেন?

এই সার্ভিস দেয়ার জন্য আসলে সামনা সামনি দেখা করার প্রয়োজনীয়তা আমি অনুভব করিনা। তবে আমার সাথে দেখা করতে চাইলে আমার ঠিকানায় চলে আসতে পারেন। একান্তই যদি আমার যাবার প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয় এবং যদি চান যেন আমি আপনার অফিসে গিয়ে পুরো ব্যাপারটি বুঝিয়ে দেই সেক্ষেত্রে আমি সাইট ভিজিটের একটি চার্জ (১৫০০ টাকা) অগ্রিম নিয়ে থাকি আমার সময় ও যাতায়াতের জন্য (শুধুমাত্র ঢাকা শহরের জন্য প্রযোজ্য)। এই ফি-টি অগ্রিম পরিশোধ করে আমাকে জানালে আমি সময় নিয়ে এসে পুরো ব্যাপারটি বুঝিয়ে দিয়ে আসব।

 

টাকা দেয়ার কতক্ষন পরে আমার এ্যাড চালু হবে?

সাধারনত টাকা পৌঁছানোর দিনেই এ্যাড সাবমিট করে দেই। কোন কোন ক্ষেত্রে (অসুস্থতা, হলিডে বা অন্য কোন জরুরী ব্যাপার হলে)  হয়তো ২৪ ঘন্টা পর্যন্ত সময় লাগতে পারে। এ্যাড সাবমিটের পরে ফেইসবুক এ্যাপ্রুভ করে লাইভ করে দেয়। যদিও ৯০% এ্যাড ১০ মিনিটের মধ্যেই চলতে শুরু করে কিছু এ্যাড ছাড় পেতে ৭২ ঘন্টা যর্যন্ত সময় নিতে পারে। 

আমার দেয়া টাকা কিভাবে ফেইসবুক খরচ করবে?

এ্যাড তৈরীর সময় দুইটি অপশন দেয়া হয়। যেখান থেকে আপনার সুবিধামতো বিলিং অপশন বেছে নিতে পারেন।:- (১) ক্লিকের হিসেব (CPC): যখন কোন ফেইসবুক ব্যাবহারকারী আপনার এ্যাডটি দেখে এ্যাডটিতে ক্লিক করবে, তখন ফেইসবুক চার্জ করবে। (বাংলাদেশের জন্য প্রতি ক্লিকের খরচ সাধারনত $.03-$.50 (২) ইম্প্রেশনের হিসেব (CPM): প্রতি ১০০০ বার দেখানোর জন্য। (বাংলাদেশের জন্য প্রতি ১০০০ বার দেখানোর খরচ সাধারনত $.10-$.50)

 

এ্যাডটি কতদিন চলবে?

এটি আসলে আপনার সিদ্ধান্ত। আপনি আপনার বাজেটের ডলার আপনার সুবিধামতো দিনে খরচ করতে পারেন। ফেইসবুকের স্মার্ট এ্যালগরিদম ওই বাজেটকে ওই সময়ের মধ্যেই খরচ করতে চেষ্টা করে। যেমন $50 বাজেট আপনি ১ দিন, ২ দিন, ৫ দিন ইত্যাদী মেয়াদে খরচ করতে পারেন। ওই সময়ের মধ্যে ফেইসবুক বাজেট খরচ করতে না পারলে বাড়তি টাকা থেকে গেলে আমি রিফান্ড করে দেই।

 

এ ছাড়া এ্যাড চলাকালিন সময় লাইভ রিপোর্ট দেখে নিতে পারেন। তবে ক্যাম্পেইন শেষ হয়ে যাবার পরে যেহেতু এ্যাডগুলো মুছে ফেলা হয় তাই পরে আর এই সুবিধা দেয়া সম্ভব নয়।

 

কতজন আমার পেইজে এ্যাডের মাধ্যমে এসেছে তার সঠিক সংখ্যা কি জানা যায়?

হ্যাঁ জানা যায়। এটা ফেইসবুক রিপোর্টে থাকেই আপনি যেনে নিতে পারবেন।

 

আচ্ছা, আমার কোন পোস্টের নীচে বুস্ট বাটনে ক্লিক করলে একটা লিস্ট দেখা যায়। যেখানে কত টাকার এ্যাড দিলে কত reach বা like হবে তার একটা ধারনা দেয়া থাকে। এটি কি সঠিক?

সাধারনত একটা রেঞ্জ দেয়া থাকে যেমন ৫০০ টাকায় 11,000 থেকে 30,000 reach. আমাদের অভিজ্ঞতা থেকে দেখেছি যে রেঞ্জটির ছোট ভ্যালুর ৭০% ধরা হলে কাছাকাছি রেজাল্ট হয়। যেমন এই উদাহরনে ক্ষেত্রে আমাদের ধারনা থাকবে যে 11,000 এর 70% = 5.00 - 7.7k আর 30,000 এর 70% = 15 - 20k এর মতো reach পেতে পারি। ফেইসবুকের বাড়িয়ে বলাটা তার নিজের এ্যাডভার্টাইজমেন্টের একটি অংশ।

 

আমরা অনেক বড় প্রতিষ্ঠান, আমাদের বাজেট অনেক বড়। একটি প্রাইস কোটেশন পাঠানো যাবে? 

না যাবে না। এখানে যথেষ্ট পরিমান তথ্য দেয়া আছে, প্রয়োজনে আরো কিছু জানার থাকলে জেনে নিতে পারেন (এসে বা ফোনে)। আমাদের সম্পর্কে খোঁজ নিয়ে দেখতে পারেন। আমরা কোন টেন্ডারে অংশ নিতে আগ্রহী নই। আপনার প্রতিষ্ঠানের পলিসি যাই হোক না কেন আমাদের সার্ভিস নিতে হলে ১০০% অগ্রিম পেমেন্ট করতে হবে,  প্রয়োজনে ক্যাম্পেইন শেষ হলে ইনভয়েস (পেইড) এবং মানি রিসিট দেয়া যাবে।

 

আমার এ্যাড চলাকালিন সময়ে আমার ক্রেডিট টপআপ করতে চাই, সেক্ষেত্রে আমাকে কি করতে হবে?

আমাদের পেমেন্ট করে যে কোন সময় আপনি আপনার বাজেট বাড়িয়ে নিতে পারেন। আপনি আপনার টপআপ ডলারের রেট আমাদের পাঠালে ২ ঘণ্টার মধ্যেই আপনার ক্রেডিট যোগ হয়ে যাবে।

 

ডলারের দাম তো ৮৫/৮৬ টাকা। আপনারা ১১০/১২০ টাকা করে নিচ্ছেন কেন?

কারন আমরা কোন সার্ভিস চার্জ নিচ্ছি না। অনলাইন এ্যডভার্টাইজিং একটি প্রফেশনাল সার্ভিস, শুধুমাত্র ডলার বিক্রি নয়। এখানে আমরা একটি ফ্ল্যাট রেট দেয়ার চেষ্টা করেছি। এই টাকার মধ্যে ডলারের দাম + ব্যাংকের চার্জ + কার্ডের চার্জ + মেইন্টেন্যান্স খরচ + আমাদের প্রফিট সবকিছুই আছে । আলাদা ভাবে এইসব হিসেব করার চাইতে ডলারের রেটে সবকিছু নিয়ে আসায় যে কোন বাজেটের এ্যাডের হিসেব সহজেই করা যায়।

আপনাদের রেটটা অনেক বেশী, আমার পছন্দ হয়নি। আমাকে কি অন্য কারো সন্ধান দিতে পারেন যারা এই ধরনের সার্ভিস দিয়ে থাকে?

অনলাইন এ্যাডভার্টাইজিং এর সার্ভিস দিয়ে থাকেন এমন অনেকেই আছেন; এছাড়া অনেকেই নতুনভাবে এ ধরনের সেবা দেয়া শুরু করছেন। এখানে আমি কয়েকজনের সন্ধান দিলাম। আশা করি কাজে লাগবে। প্রফেশনাল ও উন্নতমানের কাজের জন্য এই প্রতিষ্ঠানগুলোর সুনাম রয়েছে। আমাদের পরামর্শ হবে সম্তা ডলার রেট বা কম ডেইলি বাজেট অফার করার জন্য ভুইফোঁড় প্রতিষ্ঠান/ফ্রিল্যান্সারের কাছে না যাওয়ার জন্য। আমি সহ এই প্রতিষ্ঠানগুলো এ্যাডভার্টাইজিং করে থাকি। ফ্রিল্যান্সিং এর ডলার ক্যাশ করার জন্য সাইড বিজনেস হিসেবে এ্যাডভার্টাইজিং করি না। আমাদের মনোযোগ এ্যাডভার্টাইজিং-এ, যাতে ক্লায়েন্টের বিজনেস সম্ভাব্য বেশী লাভবান হয়।

analyzenbd.com
magnitodigital.com
maverickbd.com

 

আমি কি যে কোন ধরনের ব্যাবসার এ্যাড-ই আপনাদের মাধ্যমে দিতে পারি?

ফটোগ্রাফি, বুটিক শপে, রাজনীতি বা মিউজিক ব্যান্ডে যে ধরনের এ্যাডই দিতে চান না কেন প্রায় সবগুলো-ই ফেইসবুকের মাধ্যমে প্রচার করা সম্ভব। তবে অল্প কিছু পণ্য, সেবা ও ব্যাবসা রয়েছে যেগুলোর এ্যাড আমরা দেই না। সেগুলোর একটি ছোট তালিকা এখানে দেয়া হলো:-

আপনার পেইজের যে কোন যায়গায় (পেইজের শুরু থেকে) বা আপনার পেইজ যে ওয়েবসাইটের সাথে সম্পৃক্ত সেই ওয়েবসাইটের যে কোন যায়গায়, যে কোন ট্যাব/পেইজ/সেকশনে যদি এই পন্যগুলোর কোনটির উল্লেখ থাকে তাহলে আপনার কোন ধরনের ফেইসবুক প্রমোশন আমরা করতে পারব না।

১। সানগ্লাস
২। ঘড়ি (জেন্টস বা লেডিস ওয়াচ)
৩। ভিটামিন বা সাপ্লিমেন্ট (যেমন কোন আয়ুর্বেদিক/হার্বাল ক্যাপসুল)
৪। লটারি
৫। এমন কোন প্রোডাক্ট যার উপরে কোন ব্র্যান্ডের নাম আছে। যেমন: Ray Ban, Rolex, Calvin Klein, Apple, Samsung, Nike, Louis Vuitton, H&M, Honda, Gillette, Zara, L’Oréal, Gucci, Prada, Burberry, Dior, Ralph Lauren ইত্যাদী।
৬। এডাল্ট প্রোডাক্ট/টয়/পর্নোগ্রাফী
৭। মডেল বা Escort এজেন্সি
৮। কোন পন্য যা দেখলেই বোঝা যায় যে কোন বিখ্যাত ব্র্যান্ড-কে নকল করার চেস্টা করেছে। যেমন নাইক এর লোগো ও নাম সামান্য বিকৃত করেছে বা Adidas -কে নকল করার চেষ্টা করেছে এমন।
৯। হিডেন সার্ভেইল্যান্স প্রোডাক্ট যেমন স্পাইক্যাম।

শুধু আপনার ওয়েবসাইটে এই পন্যগুলোই নয় এগুলো বিক্রি হয় এমন কোন কথা উল্লেখ থাকলে বা কোন ওয়েবসাইটের লিঙ্ক থাকলেও আপনার কোন ধরনের ফেইসবুক এ্যাডই আমাদের পক্ষে করা সম্ভব হবে না। (পেইজ প্রমোশন হোক, পেইজের অন্য কোন পোস্ট বুস্ট হোক বা ইভেন্ট বুস্ট হোক)

আমাদের পলিসির একটি সারসংক্ষেপ এখানে দেয়া হয়েছে মাত্র এখানে দেয়া হয়নি কিন্তু আমাদের পলিসির সাথে সাংঘর্ষিক এমন কোন ক্যাম্পেইনের আপত্তি যোগাযোগের সময় জানিয়ে দেয়া হবে।